উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের বৈঠকের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মে মাস নাগাদ এই বৈঠক হতে পারে বলে ওয়াশিংটনে অবস্থানরত দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। বৈঠকের সুনির্দিষ্ট তারিখ ও স্থান এখনো ঠিক হয়নি। ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের হাতে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের একটি আমন্ত্রণপত্র হস্তান্তর করেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা জানান, বৈঠক হওয়ার আগ পর্যন্ত উত্তর কোরিয়া তাদের সব পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র কার্যক্রম বন্ধ রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

প্রায় এক বছর ধরে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে হুমকি ও পাল্টা হুমকির ঘটনা ঘটেছে। উত্তর কোরিয়া দূরপাল্লার আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে, যা যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানতে সক্ষম। তবে আলোচনার টেবিলে বসার বিষয়টিকে বড় ধরনের অগ্রগতি হিসেবে দেখা হচ্ছে।

ওয়াশিংটনে দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা পরামর্শক চুং ইউয়ি-ওং বলেছেন, কিম জং উন দ্রুত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, মে মাস নাগাদ তাঁরা বসতে পারেন।

এ সপ্তাহের প্রথম দিকে চুংয়ের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল উত্তর কোরিয়া সফর করে। তারা কিম জং উনের সঙ্গে নৈশভোজে অংশ নেন। পিয়ংইয়ংয়ের ওই বৈঠকে কিম ও তাঁর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা করার আগ্রহ দেখান। তাঁরা পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ও সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে প্রস্তুত বলে জানান।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here