অবশেষে গ্রেপ্তার হলেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান

বিলাসবহুল প্রমোদতরীর পার্টিতে মাদক সেবনের অভিযোগে আটক হয়েছেন শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা (এনসিবি)-এর কর্মকর্তারা। টানা ৬ ঘণ্টা জেরার পর মাদক গ্রহণের কথা স্বীকার করেছেন আরিয়ান। এরপর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছে।

সেখানে দাবি করা হয়, মাদক নেয়ার কথা স্বীকার করে অনুশোচনা প্রকাশ করেছেন আরিয়ান। তিনি বলেন, মাদক নিয়ে ভুল করেছেন। এর আগে কখনও এমন কিছু করেননি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আরিয়ানের সঙ্গে আটক করা হয় আরবাজ মার্চেন্ট, মুনমুন ধর্মেচা, ইশমিত সিংহ, মোহক জয়সওয়াল, বিক্রম ছোকার এবং গোমিত চোপড়াকে। শনিবার (০২ অক্টোবর) রাতের মাদক পার্টিতে তারা প্রত্যেকেই ছিলেন।

এদিকে ছেলেকে বাঁচাতে এদিক-ওদিক ছুঁটে বেড়াচ্ছেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। অন্যদিকে ছেলে আটক হওয়ার পর থেকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন গৌরী।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ভারতের বিখ্যাত আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন শাহরুখ খান। সতীশের প্রতিনিধিরা পৌঁছে গেছেন নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) দপ্তরে। আটক করার পর দীর্ঘ সময় ধরে সেখানেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে শাহরুখপুত্রকে।

এনসিবি সূত্রে জানা গেছে, খতিয়ে দেখা হচ্ছে আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট। তিনি কাদের সঙ্গে কথা বলতেন, কাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেন সবকিছুতেই নজর বুলানো হচ্ছে। কোনো মাদকচক্রের সঙ্গে তিনি যুক্ত কি না, তাও জানার চেষ্টা চলছে। বন্ধুদের বিভিন্ন গ্রুপে কী ধরনের আলোচনা করতেন আরিয়ান, সেটিও এখন তদন্তকারীদের নজরে।

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, এই পার্টিতে ‘ভিভিআইপি’ তালিকায় নাম থাকায় কোনো প্রবেশমূল্য ছাড়াই প্রবেশ করেছিলেন আরিয়ান। তিনি নিজেই জেরায় এমনটা জানিয়েছেন।

 

সূত্র: আনন্দবাজার

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here