পানিতে নেমে নেটিজেনদের দৃষ্টি কাড়লেন ঋতাভরী

কলকাতার বর্তমান সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী। স্বল্প পোশাকে ক্যামেরাবন্দি হয়ে নেটিজেনদের মনে কাঁপন ধরিয়েছেন তিনি। মুহূর্তেই তার উষ্ণ ছবিগুলো সবার দৃষ্টি কেড়েছে।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন ঋতাভরী। তার পরনে ছিলো কালো রঙের স্বল্প পোশাক। সুইমিং পুলের নীল-স্বচ্ছ পানিতে নেমে পোজ দিয়েছেন তিনি। ছবিগুলো তুলেছেন তার প্রিয় বন্ধু পারমিতা।

ক্যাপশনে ঋতাভরী লিখেছেন, ‘পানির ভেতর সবচেয়ে সুখে থাকি।’

ছবিগুলোতে ঋতাভরীকে একটু বেশিই আবেদনময়ী দেখাচ্ছে। মাত্র ৮ ঘণ্টায় ওই পোস্টে ৪৮ হাজারের বেশি রিঅ্যাকশন পড়েছে। মন্তব্যের সংখ্যাও কয়েক শত ছাড়িয়ে গেছে।

রণিতা দাস লিখেছেন- আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দরী। তাকে অনেক ভালোবাসি।

কৌশিক সেন লিখেছেন- জলপরী।

সেন্ডি পার্থ বাগচী লিখেছেন- তোমাকে শাড়িতেই ভীষণ ভালো লাগে। তাই পরেরবার সুইমিং পুলে নামলে শাড়ি পরেই নেমো।

খানিকটা মজার ছলে শুভজিৎ লিখেছেন- এবার ঠান্ডা লাগলে আমি আর ওষুধ খেতেও বলবো না। দেখবো নতুন বর কেমন খেয়াল রাখে।

মাস দুয়েক আগে ঋতাভরীর বিয়ের গুঞ্জন চাউর হয়। সেসময় শোনা যায়, চলতি বছর শেষে এনগেজমেন্ট এবং আগামী বছর বিয়ে করবেন এই অভিনেত্রী। পাত্র ঋতাভরীর ডাক্তার-বন্ধু তথাগত চট্টোপাধ্যায়। তথাগত মনের ডাক্তার। কয়েক বছর ধরে মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করছেন ঋতাভরী। এটাই প্রেমিক-বন্ধুর সঙ্গে আলাপের যোগসূত্র।

বিয়ের গুঞ্জনটি নিজেই উড়িয়ে দিয়েছেন ঋতাভরী। সেসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লেখেন, ‘আমি এখন বিয়ে করছি না। আপনারা জানেন যে আমার সবেমাত্র দুটো সার্জারি হয়েছে এবং তার থেকে আমি ধীরে-ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছি। আমি আমার স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিচ্ছি এবং সব প্রোজেক্টে যেগুলোয় আমি সাইন করেছি। পুনশ্চ: এটা নিয়ে আর প্রতিবেদন করবেন না। আমি এ বিষয়ে আর কথা বলতে চাই না।’

উল্লেখ্য, কলকাতার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ওগো বধূ সুন্দরী’তে অভিনয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। সেই ধারাবাহিকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি। পরবর্তীতে তাকে দেখা গেছে ‘চতুষ্কোণ’, ‘কলকাতায় কলম্বাস’, ‘শেষ থেকে শুরু’ ও ‘ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি’র মতো দর্শকপ্রিয় সিনেমায়। এছাড়া বলিউডের ‘পরী’ সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। অভিনেত্রীর পাশাপাশি তিনি একজন গায়িকা, প্রযোজক এবং সমাজকর্মী হিসেবে পরিচিত।

 

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here