হোম বাংলাদেশ বনশ্রীতে বাসের ধাক্কায় সিএনজি চালকসহ নিহত ২

বনশ্রীতে বাসের ধাক্কায় সিএনজি চালকসহ নিহত ২

কর্তৃক স্টাফ রিপোর্টার
27 ভিউস

রাজধানীর বনশ্রীর ফেমাস হাসপাতালের সামনে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় সিএনজি চালকসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

নিহতরা হলেন- সিএনজি চালক মো. স্বপন (৩২) ও ওই সিএনজির যাত্রী ফাতেমা বেগম (৪০)। এছাড়া আহত হয়েছে সাকিব (১৭) ও শাকিল (৮) নামে আরও দুই যাত্রী।

 

আজ বেলা ১১টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সাড়ে ১২টার দিকে দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আর আহত দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

নিহতদের নিয়ে আসা অ্যাম্বুলেন্সের চালক আরিফ হোসেন জানান, বনশ্রী ফেমাস হাসপাতালের সামনে বিপরীত দিক থেকে অছিম পরিবহনের একটি বাস সিএনজিকে ধাক্কা দেয়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে দুইজন মারা যান। তিনি জানান, সিএনজি করে তার আত্মীয় বাসায় যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনার শিকার হন।
তিনি আরো জানান, নিহত ফাতেমার বাড়ি কুমিল্লা জেলারবরুড়া থানার আড্ডা গ্রামে।

এদিকে খবর পেয়ে সিএনজিচালকের আত্মীয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে লাশ শনাক্ত করেন। তিনি জানান, নিহত ব্যক্তির নাম স্বপন (৩২)।
নিহত স্বপন ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন থানার গঙ্গাপুর গ্রামের মৃত শহীদ এর সন্তান। বর্তমানে কাফরুলের ইব্রাহিমপুর এলাকায় থাকতেন। দুই ভাই দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়। নিহত স্বপন এক ছেলের জনক ছিলেন।

রোববার (১৯ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় দুইজন গুরুতর আহতসহ চারজন আহত হন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সাড়ে ১২টার দিকে দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

 

রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) এ দুঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, যাত্রী ফাতেমা আক্তার পান্না (৪০) ও চালক মো. স্বপন (৩৫)। আহত হয়েছেন, ফাতেমার দুই ছেলে সাকিব (১৫) ও শাকিল (১২)।

মৃত ফাতেমার স্বামী দুবাইপ্রবাসী শাহ আলম কুমিল্লার বরুড়ার বাসিন্দা।

 

আহতরা হলেন-অটোরিকশা চালক মহির উদ্দিন (৩৬), ঢাকা পাওয়ার ডিসট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) গাড়িচালক জয়নাল আবেদীন জিতু (৫৫), তার স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম (৪৫), লাইনম্যান কবির আকন্দ (৫৮) ও পিয়ন মালতি রায় চৌধুরী (৫০)।

আহত অটোরিকশা চালক মহির উদ্দিন জানান, চার জন খিলগাঁও তালতলা থেকে সিএনজি অটোরিকশায় নিয়ে যাচ্ছিলেন জুরাইনে। পথে যাত্রাবাড়ী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার ব্রিজের ওপরে মৌমিতা পরিবহন একটি বাস পেছন থেকে অটোরিকশাটিকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশা উল্টে গেলে তারা আহত হন। পরে পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায়।

ঢাকা মেডিকেলে তাদের সঙ্গে থাকা ডিপিডিসির লাইনম্যান আব্দুল আলিম জানান, খিলগাঁও তালতলা এলাকায় আজ তাদের অফিস স্টাফদের নির্বাচন হচ্ছিল। সেখানে থেকে অটোরিকশায় বাসায় ফেরার পথে তারা ৪ জন এ দুর্ঘটনার শিকার হন। দুর্ঘটনায় মালতির মাথায়, ফেরদৌসির দুই পা ও কোমর সহ বিভিন্ন জাগায় আঘাত পেয়েছেন। বাকিদেরও বিভিন্ন জায়গায় আঘাত রয়েছে।

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ফ্লাইওভার ব্রিজের ওপরে বাসের ধাক্কায় অটোরিকশা আরোহী আহত হন। তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দুর্ঘটনার পরপরই মৌমিতা পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হয়েছে।

 

নিহতের স্বজনরা জানান, গত দু’দিন আগে ফাতেমা আক্তার দুই ছেলেকে নিয়ে তার খালাতো বোনের বাড়ি সানারপাড় এলাকায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে আজ সিএনজি অটোরিকশা যোগে তার বড় বোন শিল্পীর বাসা দক্ষিণখানে যাচ্ছিলেন। তারা খিলগাঁও বনশ্রী এলাকায় পৌঁছালে অসীম পরিবহনের একটি বাস সিএনজিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে চালকসহ অটোরিকশার যাত্রীরা গুরুতর আহত হন।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফাতেমাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর কিছু সময় পর অটোরিকশা চালক মো. স্বপনকেও (৩৫) মৃত ঘোষণা করা হয়। আহত দুই সহোদর সাকিব ও শাকিল চিকিৎসাধীন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া তিনি বলেন, মৃতদেহ দুটি মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি খিলগাঁও থানা অবগত রয়েছে।

খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফখরুল আলম বলেন, এ ঘটনায় বাস চালককে আটক করা হয়েছে, বাসটিকেও জব্দ করা হয়েছে।

০ মন্তব্য
0

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন