তিস্তার জল আগে আমরা খাবো, পরে অন্যদের দেবো: মমতা

0
44

তিস্তা নিয়ে ফের কঠোর অবস্থানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বলেন, তিস্তার জল আগে আমরা খাবো, পরে অন্যদের দেবো।

রোববার (৭মার্চ) শিলিগুড়িতে এক বক্তব্য এ কথা বলেন মমতা।এসময় তিনি মোদি সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন।মমতা থাকতে বাংলাদেশের মানুষের কাছে তিস্তার পানি নিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়ে কোন লাভ নেই জানান এই মূখ্যমন্ত্রী।

মার্চ মাসেই বাংলাদেশ সফর করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদি।এসময় তিস্তার পানি নিয়ে বাংলাদেশের মানুষকে আশ্বাস না দেয়ার কথা বলেন মমতা।

তিস্তার পানি না পওয়ায় চেয়ে এখন বাংলাদেশে আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে আছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷ ‘তিস্তায় তো পানি নাই’ – এ কথা বলার পর হাসিনাকে তোরসা আর দুধকুমারের পানি নিয়ে বিকল্প প্রস্তাব দেন তিনি৷

তিস্তার পানি না পওয়ায় চেয়ে এখন বাংলাদেশে আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে আছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷  ‘তিস্তায় তো পানি নাই’ – এ কথা বলার পর হাসিনাকে তোরসা আর দুধকুমারের পানি নিয়ে বিকল্প প্রস্তাব দেন তিনি৷

তিস্তা নদীর উৎপত্তি সিকিমে৷ আর এ নদী বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে লালমনিরহাট জেলার সীমান্ত দিয়ে৷ মাঝখানে পশ্চিমবঙ্গ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে তিস্তা৷ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের মূল লক্ষ্য ছিল তিস্তার পানিবণ্টণ চুক্তি৷ ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সদিচ্ছাও ছিল৷ কিন্তু বেঁকে বসেন মমতা ব্যানার্জি৷ প্রসঙ্গত, ভারতের সংবিধান অনুযায়ী রাজ্য সরকারের অনুমমোদন ছাড়া কেন্দ্র এ ধরনের রাজ্য সংক্রান্ত চুক্তি করতে পারে না৷ এর আগে ২০১১ সালেও সব কিছু চূড়ান্ত হওয়ার পরও মমতার কারণেই চুক্তিটি আলোর মুখ দেখেনি৷ ঐ সময় মমতা তাঁর ওপর বিশ্বাস রাখতে বললেও, এবার কিন্তু আর বিশ্বাসের কথা বলেননি৷ ৭ এপ্রিল শেখ হাসিনার ভারত সফরের শুরুর মাত্র ৪৮ ঘণ্টা আগে তিনি বলেই দেন ‘‘তিস্তায় তো পানি নাই”৷

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here