পূজামণ্ডপ ঘিরে মেলা বসানো যাবে না

আসন্ন দুর্গাপূজার মণ্ডপের আশেপাশে মেলা বসানো যাবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। রোববার (৩ অক্টোবর) সচিবালয়ে আসন্ন দুর্গাপূজায় আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, এবার দেশের ৩১ হাজার ১৩৭টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে। দেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্গাপূজার মণ্ডপের আশেপাশে মসজদি রয়েছে। তাই মসজিদে আজানের সময় পূজামণ্ডপে বাদ্যযন্ত্র বন্ধ রাখতে হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, করোনা সুরক্ষায় মন্দিরে প্রবেশের সময় প্রত্যেককে মুখে মাস্ক পরতে হবে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ক্ষেত্র বিশেষে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা থাকবে। থার্মাল স্ক্যানার থাকবে, কারো শরীরের তাপমাত্রা বেশি থাকলে পূজামণ্ডপে ঢুকতে দেয়া হবে না।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আজান ও নামাজের সময় মসজিদের কাছের পূজামণ্ডপগুলোতে সংযতভাবে পূজাঅর্চনা করা, সেই সময়ের জন্য বাদ্যযন্ত্র বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। আজান ও নামাজের সময় তারা যেন বিরতি দেন। অনেক জায়গায় মসজিদ ও মন্দির অনেক পাশাপাশি, সেসব জায়গায় তাদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। পূজামণ্ডপের আশেপাশে কোনো দোকানপাট ও মেলা বসতে দেয়া হবে না। হাউজি ও জুয়া খেলা পূজামন্ডপে করতে দেয়া হবে না। বাজি, পটকা ফোটানো যাবে না, মাদক সেবন করা যাবে না। অস্থায়ী পূজামণ্ডপগুলোকে নির্দিষ্ট দিনেই প্রতিমা বিসর্জন দিতে হবে।

পূজামণ্ডপের আশেপাশে পুলিশি টহল জোরদার থাকবে। কোনও অপতৎপরতা চোখে পড়লে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সভায় পুলিশের আইজিসহ বিভিন্ন সংস্থার প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here