হোম আন্তর্জাতিক বিদ্যুৎগতিতে ছড়াচ্ছে অমিক্রন, ২৪ দিনে ৮৯ দেশে সংক্রমণ

বিদ্যুৎগতিতে ছড়াচ্ছে অমিক্রন, ২৪ দিনে ৮৯ দেশে সংক্রমণ

কর্তৃক স্টাফ রিপোর্টার
25 ভিউস

করোনার ডেলটা ধরনের চেয়ে কয়েক গুণ দ্রুতগতিতে ছড়াচ্ছে ভাইরাসটির নতুন ধরন অমিক্রন। এ গতি এতটাই যে বিভিন্ন দেশে মাত্র দেড় থেকে তিন দিনে অমিক্রনে সংক্রমণের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে। শনিবার মহামারির হালনাগাদ তথ্য দিতে গিয়ে ডব্লিউএইচও এ কথা জানায়। খবর আল-জাজিরা, বিবিসি ও এএফপির

 

যুক্তরাজ্যের একদল গবেষক বলছেন, অমিক্রনে সংক্রমিত ব্যক্তির দেহে ডেলটার চেয়ে মৃদু উপসর্গ দেখা দেওয়ার প্রমাণ পাননি তাঁরা। গবেষকেরা আরও বলছেন, এ অবস্থায় নতুন ধরনটি ততটা মারাত্মক না-ও হতে পারে এবং স্বাস্থ্যসেবার ওপর তেমন চাপ না-ও তৈরি করতে পারে—বিশেষজ্ঞদের ইতিপূর্বে করা এমন আশাবাদ নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলেছে, প্রথমে দক্ষিণ আফ্রিকা গত ২৪ নভেম্বর দেশটিতে অমিক্রনের সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার ঘটনা তাদের অবগত করে। এর পর থেকে মাত্র তিন সপ্তাহের কিছু বেশি সময়ে বিশ্বের ৮৯টি দেশে করোনার নতুন ধরনটি ছড়িয়ে পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

আশঙ্কার বিষয়, উচ্চমাত্রায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাসম্পন্ন মানুষের শরীরে অমিক্রন দ্রুত ছড়াচ্ছে—এমন তথ্য জানিয়ে ডব্লিউএইচও বলছে, এমনটি কেন হচ্ছে, তা এখনো পরিষ্কার নয়। তাদের ধারণা, অমিক্রনের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা ভেঙে দেওয়া বা অতিমাত্রায় সংক্রমণ ক্ষমতা কিংবা এ দুইয়ের সংমিশ্রণজনিত কারণে এমনটা হতে পারে।

 

 

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসটেক্স বলেছেন, ইউরোপে করোনা বিদ্যুৎগতিতে ছড়াচ্ছে। বছরের শুরুতে এটি ফ্রান্সেও প্রভাব বিস্তার শুরু করবে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন। যুক্তরাজ্যে ভ্রমণ ও সে দেশ থেকে লোকজনের আসা ঠেকাতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে এ মন্তব্য করেন তিনি।

 

ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের সমীক্ষায় দেখা গেছে, অমিক্রনে পুনঃ সংক্রমণের আশঙ্কা ডেলটার চেয়ে পাঁচ গুণ বেশি। তবে এখনই এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার মতো পর্যাপ্ত তথ্য-উপাত্ত নেই বলে জানিয়েছেন গবেষকেরা।

স্থানীয় সময় গত শুক্রবার ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের সমীক্ষা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়। এমন এক সময় প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হলো, যখন যুক্তরাজ্যে করোনার সংক্রমণ নতুন করে বাড়তে শুরু করেছে। টানা তিন দিন দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা রেকর্ড ছাড়িয়েছে। শুক্রবার দেশটিতে নতুন করে ৯৩ হাজার ৪৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

 

ওই সমীক্ষা প্রতিবেদনে বলা হয়, অমিক্রনের সংক্রমণে ডেলটা থেকে ভিন্নমাত্রায় রোগের তীব্রতা থাকার প্রমাণ (হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঝুঁকি ও উপসর্গের অবস্থা) পাওয়া যায়নি। তবে এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্যমতে, অমিক্রনে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার হার তুলনামূলক কম।

 

গত মাসের শেষ দিকে অমিক্রনের প্রথম রোগী শনাক্ত হয় দক্ষিণ আফ্রিকায়। অল্প কয়েক দিনে এটি দ্রুত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে। ডব্লিউএইচও বলছে, সংক্রমণের হার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সংখ্যাও বাড়তে পারে। অমিক্রন ঠেকাতে এখন পর্যন্ত টিকার ওপরই জোর দিচ্ছে সংস্থাটি।

 

ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশের নেতারাও কঠোর বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত না নিয়ে টিকা দেওয়ার ওপর জোর দিচ্ছেন। তবে টিকা বণ্টনের ক্ষেত্রে বৈষম্য হচ্ছে এবং মহামারি মোকাবিলায় নেওয়া পদক্ষেপে সমন্বয় খুব প্রয়োজন উল্লেখ করে জাতিসংঘের মহাসচিব বলেছেন, সমন্বয়হীন পদক্ষেপ নিলে মহামারি মোকাবিলা করা সম্ভব নয়।

বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিমানবন্দরে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষাগার পরিদর্শনের সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন সাতটি দেশ থেকে আসা যাত্রীদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিতে শক্ত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

রাতেই বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ সাতটি দেশের নাম জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেয় যে এসব দেশ থেকে কেউ এলে তাদের নিজ খরচে সরকার নির্ধারিত হোটেলে ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

দেশগুলো হলো: বতসোয়ানা, ইসোয়াতিনি, ঘানা, নামিবিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে এবং লেসোথো।

এসব দেশ থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে বিমানে ওঠার আগেই কোয়ারেন্টিনের জন্য সরকারি নির্ধারিত হোটেল নির্বাচন করতে হবে যাত্রীদের।

হোটেলে কোয়ারেন্টিনের সপ্তম দিনে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট এলে যাত্রীকে আলাদা করে আইসোলেশনে পাঠানো হবে।

আর নেগেটিভ রিপোর্ট এলে তাকে হোটেলে বাকি সাত দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

এর পর ১৪তম দিনে দ্বিতীয় করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ রিপোর্ট আসলে ওই যাত্রী কোয়ারেন্টিন কেন্দ্র থেকে চলে যেতে পারবেন।
২৪টি দেশে শনাক্ত অমিক্রন, তাদের জন্য কী নিয়ম?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে এ পর্যন্ত বিশ্বে প্রায় ২৪টি দেশে অমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। চলতি সপ্তাহেই নতুন এই ধরন শনাক্ত হয়েছে আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও ভারতে।

তাহলে এসব দেশ থেকে আসা যাত্রীদের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেয়া হবে, সে সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেনি বাংলাদেশে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, নতুন ভ্যারিয়েন্ট অমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় আক্রান্ত দেশগুলো থেকে বাংলাদেশে যাত্রী আসা বন্ধ করার সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।

তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকাসহ যেসব দেশে এই ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে সেখান থেকে বাংলাদেশে না এসে প্রবাসীরা যেন তাদের কর্মস্থলেই অবস্থান করেন।

এখন সীমান্তে স্থল বন্দরগুলোতে অতিরিক্ত সতর্কতা অর্থাৎ করোনা বিষয়ক বিধিনিষেধ প্রতিপালন জোরদার করা হয়েছে।

 

করোনা মহামারি শুরুর পর গত বুধবার যুক্তরাজ্যে সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ পৌঁছায়। পরের দুই দিনে তা আরও বাড়ে। এ প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। অতিসংক্রামক ধরন অমিক্রন এরই মধ্যে যুক্তরাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে পড়ছে। এ পর্যন্ত দেশটিতে ১৫ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে ধরনটির উপস্থিতি মিলেছে। অমিক্রনে প্রথম মৃত্যুও হয়েছে দেশটিতে।

০ মন্তব্য
0

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন